গ্রাফিক্স ডিজাইন করে ইনকাম করার অসাধারন উপায়। Graphic design income

0Shares

 

আপনি যদি ছবি আঁকতে পারেন বা সৃজনশীল কোন ডিজাইন করতে পারেন। তাহলে গ্রাফিক্স ডিজাইন করে ইনকাম ( Graphic design income ) করতে পারবেন প্রতি মাসে ৫০ হাজার থেকে এক লক্ষ টাকা।

 

এই আর্টিকেলে কি কি থাকছে?

গ্রাফিক্স ডিজাইন করে ইনকাম করার অসাধারন উপায় :

আপনি যদি ক্রিয়েটিভ সৃজনশীল মন মানসিকতার মানুষ হন।

তাহলে এই পোষ্ট টি আপনার জন্য। অনলাইনে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস রয়েছে।

যেখানে একটি গ্রাফিক্স ডিজাইনের মূল্য অনেক বেশি।

তার আগে চলুন জেনে নেই গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? কি কি শিখতে হবে? কোথায় থেকে শিখতে হবে? কি কাজ করতে হবে?

এবং গ্রাফিক্স ডিজাইন করে আয় করার কিছু জনপ্রিয় মাধ্যম দেখিয়ে দেব এই আলোচনায়।

 

গ্রাফিক্স ডিজাইনের জনপ্রিয় ক্যাটাগরি :

১. লোগো ডিজাইন

২. ফন্ট ডিজাইন করে আয়

৩. টি-শার্ট ডিজাইন করে আয়

৪. স্টক গ্রাফিক্স ডিজাইন থেকে আয়

৫. ভিডিও টিউটোরিয়াল সেল

৬. ইউটিউবিং

৭.  ডিজাইন টেমপ্লেট সেল

৮. ফ্রিল্যান্সিং

৯. ইন্ডাষ্ট্রিয়াল ডিজাইন

১০. এডিট গ্রাফিক্স

১১. বিজ্ঞাপন ডিজাইন

১২. ইনফোগ্রাফিক ডিজাইন

 

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি ( What is  graphic design) :

কোন একটি ডিজাইন বা কোন আকৃতি কম্পিউটারের মাধ্যমে প্রতিরূপ দেওয়াই হল গ্রাফিক্স ডিজাইন।

 

সহজ ভাষায় বলতে গেলে,

কোন ব্যানার, বিজ্ঞাপন, টি শার্ট ডিজাইন, ফ্যাশন ডিজাইন, ফার্নিচার ডিজাইন এবং প্রোডাক্ট ডিজাইন এসব কাজগুলো কম্পিউটারের মাধ্যমে নিখুঁতভাবে ক্রিয়েটিভ আইডিয়া দিয়ে নিত্য নতুন ডিজাইন করার নামই হচ্ছে গ্রাফিক্স ডিজাইন।

 

গ্রাফিক্স ডিজাইনের জন্য কি শিখতে হবে :

কথা হচ্ছে আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে চান, তাহলে আপনাকে কি কি কাজ শিখতে হবে।

প্রথমে আপনার যা প্রয়োজন সেটা হচ্ছে আপনার যে কোন সৃজনশীল আইডিয়া।

অর্থাৎ, কোন কিছু অংকন করার মন মানসিকতা।

সুতরাং, আপনার অংকন করা বা ডিজাইন করার কোন ফরমেটকে কম্পিউটারাইজড করার জন্য কিছু সফটওয়্যার এর মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার মূল উদ্দেশ্য।

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখার জন্য আপনাকে বেশ কিছু সফটওয়্যার এর সাহায্য নিতে হবে।

 

জনপ্রিয় কিছু গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার সফটওয়্যার :

আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে চান তাহলে অবশ্যই সফটওয়্যার এর সাহায্য নিতে হবে।

আর এর জন্য জনপ্রিয় কিছু সফটওয়্যার রয়েছে সেগুলো নিচে দেওয়া হল :

১. এডোবি ফটোশপ

২. এডোবি ইলাস্ট্রেটর

৩. এডোবি ইনডিজাইন

৪. করেল ড্র

৫. থ্রিডি ডিজাইন ম্যাক্স

এছাড়া আরও বেশ কিছু সফটওয়্যার রয়েছে। যেগুলো আপনি অনলাইনে দেখলেই পেয়ে যাবেন।

আর এই সফটওয়্যার গুলো কাজ শিখলে আপনি গ্রাফিক্স এর সকল কাজ করতে পারবেন ইনশাআল্লাহ।

 

গ্রাফিক্স ডিজাইন কোথায় থেকে শিখবেন :

আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে চান তাহলে দুইভাবে শিখতে পারবেন :

 

ফ্রিতে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখা :

আপনি চাইলে গ্রাফিক্স ডিজাইন ঘরে বসেই গুগল এবং ইউটিউব এর সাহায্য নিয়ে বিভিন্ন ডিজাইন লিখে সার্চ করে শিখতে পারবেন।

বর্তমানে গুগল এবং ইউটিউবে অসংখ্য গ্রাফিক্স ডিজাইনারের ফ্রি কোর্স রয়েছে।

আপনি চাইলে যে কোন একটি কোর্সে অংশগ্রহণ করে কাজ শিখতে পারবেন।

এবং কয়েক লক্ষ ভিডিও রয়েছে যেগুলো দেখে আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে পারবেন।

 

অর্থ খরচ করে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখা :

আপনি চাইলে আপনার আশেপাশে যে কোন একটি গ্রাফিক্স ডিজাইন ট্রেনিং সেন্টারে যোগদান করে সেখান থেকে ডিজাইন শিখতে পারবেন।

সেক্ষেত্রে আপনাকে ৫ হাজার থেকে শুরু করে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ফি দেওয়া প্রয়োজন হতে পারে।

তারপরও পুরোপুরি শিখতে পারবেন না সেখান থেকে।

পরবর্তীতে সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে নিত্য নতুন ভাল কিছু শিখতে হবে।

অর্থাৎ এখন পুরোটাই আপনার ইচ্ছা আপনি কিভাবে শিখবেন গ্রাফিক্স ডিজাইন?

 

গ্রাফিক্স ডিজাইন করে ইনকাম করার জনপ্রিয় কিছু উপায় :

How to earn money from graphic design?

Graphic design income – প্রথমেই যে সমস্ত কাজ গুলো আপনার জন্য সহজ হবে সেগুলো শিখবেন। এরপর আস্তে আস্তে কঠিনের দিকে যাবেন।

 

১. লোগো ডিজাইন করে আয় :

যেকোনো একটি কোম্পানির বা কোন প্রোডাক্টের পরিচয় বহন করে একটি লোগো।

তাহলে, বুঝতে পারছেন লোগো ডিজাইনের গুরুত্ব আমাদের পৃথিবীতে কতটা রয়েছে।

তারা এ সমস্ত ডিজাইন গুলো অনলাইন বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে অথবা অফলাইন কিছু সংখ্যক দক্ষ গ্রাফিক্স ডিজাইনার দিয়ে করিয়ে নিয়ে থাকেন।

এর জন্য তারা প্রতিটির পরিবর্তে ২০ ডলার থেকে শুরু করে ৫০০ ডলার পর্যন্ত পেমেন্ট করে থাকে।

অনলাইনে যদিও লোগো ডিজাইনের অনেক কম্পিটিশন তারপরও যদি আপনি যদি একজন দক্ষ গ্রাফিক্স ডিজাইনার হন তাহলে অনায়াসে প্রতি মাসে ৫০ হাজার টাকা শুরু করে এক লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

 

লোগো ডিজাইন করে ইনকাম করার জনপ্রিয় কিছু অনলাইন মাধ্যম :

১. 99designs.com

২. freelancer.com

৩. fiverr.com

৪. upwork.com

৫. guru.com

৬. peopleperhour.com

 

২. ফন্ট ডিজাইন করে আয় :

আপনি যদি বিভিন্ন ডিজাইনের লেখা লিখতে পারেন।

তাহলে আপনার বিভিন্ন ডিজাইনের লেখাগুলোকে কম্পিউটারাইজ করে ফন্ট আকারে ডিজাইন করতে পারেন।

সেই ফন্ট অনলাইনে বিক্রি করেও খুব ভালো পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন।

ETSY হল একটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট।

যেখানে আপনি চাইলেই আপনার যেকোন ফন্ট ডিজাইন করে সেখানে বিক্রয় করতে পারবেন।

যত বিক্রয় হবে আপনার আয় তত বাড়বে।

 

৩. টি শার্ট ডিজাইন করে আয় :

আপনি যদি ভাল মানের ডিজাইন করতে পারেন। তাহলে, চাইলে আপনি টি শার্ট ডিজাইনের কাজ শিখতে পারেন।

কেননা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস থেকে অনলাইনে এবং অফলাইনে লক্ষ লক্ষ টি শার্ট সেল হচ্ছে নতুন নতুন ডিজাইনের জন্য।

টি শার্ট ডিজাইন করে সেল করার জন্য বেশ কিছু জনপ্রিয় ওয়েবসাইট রয়েছে তার মধ্যে জনপ্রিয় কয়েকটি ওয়েবসাইট হল :

১. Redbubble

২. Threadless

৩. Teespring

 

৪. স্টক গ্রাফিক্স ডিজাইন করে আয় :

আপনি চাইলে স্টক ডিজাইন করে অনেক ভাল পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন।

বর্তমানে অনলাইনে বেশকিছু পপুলার ওয়েবসাইট রয়েছে।

যেখানে আপনি চাইলে আপনার ভিডিও গুলো বা স্টক ক্লিপ, ক্লিপ আর্ট, ভেক্টর ডিজাইন লোগো সহ আরও অনেক ধরণের ডিজাইন স্টক মার্কেটে  বিক্রি করতে পারেন।

মনে রাখবেন এই ইনকাম কেমন সিস্টেমে আসবে যে আপনি একবারে কাজ করবেন।

এক বার আপনার একটি ডিজাইন আপলোড করবেন।

সেখান থেকে যতবার সেল হবে বা বিক্রয় হবে এবং ডাউনলোড হবে আপনি তত বারই সেখান থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

 

অনলাইনে স্টক ডিজাইন বিক্রয়ের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট গুলো হল :

১. iStock

২. Shutterstock

৩. Snapwire

৪. Alamy

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখে অন্যান্য মার্কেটপ্লেসের তুলনায় এই মার্কেটপ্লেস গুলোতে আপনি অনেক বেশি পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন।

 

৫. ভিডিও টিউটোরিয়াল সেল করে আয় :

আপনি যদি ভাল ডিজাইনার হন এবং দক্ষ ডিজাইনার হওয়া বিভিন্ন ধরনের ক্রিয়েটিভ আইডিয়া থাকে এবং আপনার ক্রিয়েটিভ আইডিয়াকে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও কোর্স বা টিউটরিয়াল বানিয়ে সেই ভিডিও গুলোকে আপনি অনলাইনে বিক্রয় করতে পারবেন।

অথবা আপনি অনলাইনে লাইভ ক্লাস নিয়ে ছাত্রদেরকে শেখাতে পারেন।

সে ক্ষেত্রে আপনার ভাল পরিমাণে একটা প্রকৃত ইনকাম জেনারেট হবে।

 

টিউটরিয়াল বা ভিডিও কোর্স  বিক্রয়ের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট হল :

SkillShare

 

৬. ইউটিউবিং করে আয় :

আপনি চাইলে বিভিন্ন ধরনের ডিজাইন করে সেগুলো ভিডিও করে অথবা স্ক্রিন রেকর্ড করে ইউটিউবে আপলোড করতে পারেন।

তারপর মনিটাইজেশন করে অনেক পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন।

এটা একটি আনলিমিটেড ইনকামের জনপ্রিয় মাধ্যম।

 

৭. ডিজাইন টেমপ্লেট সেল করে আয় :

আপনি চাইলে আপনি বিভিন্ন ধরনের ডিজাইনগুলো টেমপ্লেট আকারে ডিজাইন করে রাখতে পারেন।

যাতে সেগুলো পরবর্তীতে এডিটিং করা যায় এরকম ভাবে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে বিক্রয় করতে পারবেন।

আপনার তৈরিকৃত ডিজাইন করা টেম্পলেটগুলো যত সেল হবে আপনি তত আয় করতে পারবেন।

 

ডিজাইন করা টেম্পলেট সেল করার জনপ্রিয় কিছু ওয়েবসাইট হল :

১. Shutterstock

২. pixels

৩. freepic

 

 ৮. ফ্রিল্যান্সিং করে আয় :

আপনি যদি একজন দক্ষ গ্রাফিক্স ডিজাইনার হতে পারেন।

তাহলে গ্রাফিক্স এর বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে কাজ করে অনলাইনে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস গুলোতে খুব ভাল পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন।

বর্তমানে গ্রাফিক্স ডিজাইনাররা বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছে বাসায় বসে।

আমি নিচে কিছু জনপ্রিয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস এর নাম দিয়ে দিলাম।

এখানে আপনারা চাইলেই রেজিস্ট্রেশন করে আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইনার হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করতে পারেন।

 

জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট গুলো হল :

১. fiverr.com

২. upwork.com

৩. freelancer.com

৪. peopleperhour.com

৫. guru.com

৬. 99designs.com

 

৯. ইন্ডাষ্ট্রিয়াল ডিজাইন করে আয় :

আপনি চাইলে বিভিন্ন কোম্পানির ইন্ডাস্ট্রির ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডিজাইন করতে পারেন।

যেমন, হ্যান্ডটেক, প্রডাক্ট প্যাকেজিং, প্যাকেজিং, কভার ডিজাইন, লেভেল ডিজাইন ইত্যাদি।

অফলাইন বা অনলাইনে বিভিন্ন সেক্টরে সমস্ত কাজগুলো পেয়ে থাকবেন।

বিভিন্ন অনলাইন মার্কেটপ্লেস গুলোতে এ ধরনের বিভিন্ন অফার হয়ে থাকে।

এবং লো কম্পিটিশনে আপনি এ সমস্ত কাজ গুলো করে ইনকাম করতে পারবেন।

 

১০. এডিট গ্রাফিক্স করে আয় :

বিভিন্ন গ্রাফিক্স ডিজাইন টেম্পলেটগুলো আপনি এডিটিং করে ভাল পরিমানে আয় করতে পারবেন অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলো থেকে।

বিভিন্ন অনলাইন মার্কেটপ্লেস গুলোতে এই ধরনের অনেক অফার হয়ে থাকে।

কেননা বিভিন্ন কোম্পানি অন্যান্য মার্কেটপ্লেস থেকে টেম্পলেটগুলো কিনে এবং সেগুলো বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সার দ্বারা ডিজাইন গুলোকে এডিট করে নেয়।

আপনি চাইলে এডিট করে ভাল পরিমানে আয় করতে পারবেন অনলাইন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস গুলো থেকে।

 

১১. বিজ্ঞাপন ডিজাইন করে আয় :

বিভিন্ন কোম্পানির প্রডাক্ট বা সার্ভিস গুলোকে অনলাইনে বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপন ব্যানার ডিজাইন করে থাকেন।

সেগুলো অনলাইনে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস গুলো থেকে ফ্রিল্যান্সার দিয়েই করিয়ে থাকেন।

আপনি একজন বিজ্ঞাপন ব্যানার ডিজাইনার হয়ে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস থেকে খুব ভাল পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন।

 

১২. ইনফো গ্রাফিক্স ডিজাইন করে আয় :

ইনফো গ্রাফিক্স ডিজাইন করে অনলাইন মার্কেটপ্লেস থেকে ইনকাম করার একটি অন্যতম মাধ্যম হিসেবে কাজ করে।

বিভিন্ন গ্রাফিক্স ডিজাইনাররা ইনফো গ্রাফিক্স ডিজাইন করে প্রতি মাসে ৫০ হাজার টাকা থেকে শুরু করে এক লক্ষ টাকা এবং তারও অধিক ইনকাম করছে বিভিন্ন অনলাইন মার্কেটপ্লেস গুলো থেকে।

সুতরাং, এই উপায়গুলো মেনে কাজ করার চেষ্ঠা করুন।

আশা করি আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন করে ইনকাম করতে পারবেন ইনশাআল্লাহ।

 

মন্তব্য :

পরিশেষে বলা যায় যে, গ্রাফিক্স ডিজাইন করে ইনকাম করার অসাধারন উপায় ( Graphic design income ) সম্পর্কে এখানে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

উপরে উল্লেখিত বিষয় গুলো মেনে কাজ করলে ইনশাআল্লাহ  আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন করে ইনকাম করতে পারবেন।

অতএব, আমার লেখা সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টে জানাতে ভূলবেন না।

যদি আমি কোন বিষয় মিস করে থাকি অথবা আপনি আরও কোন বিষয় সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে অবশ্যই আমাকে কমেন্ট করে জানাবেন।

এই ধরণের লেখার নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে এবং টুইটারে ফলো করে রাখতে পারেন।

ধন্যবাদ

 

Leave a Comment